বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:২১ অপরাহ্ন

শিবগঞ্জে খাস জমি অবৈধভাবে দখল করে পাকা দোকান ও বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ৪৩ বার পঠিত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা বাজারর খাস জমি অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর ও বাড়ি নির্মানের অভিযোগ উঠেছে। প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছে একজন সাবেক ইউপি সদস্যসহ কয়েকজন এলাকাবাসী।
গত ১৪ সেপ্টম্বর তারিখে মনাকষা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল কাইয়ুম ও আরো কয়েকজন স্বাক্ষর করে একটি আবেদন জেলা প্রশাসক বরাবর করেছেন এবং এর অনুলিপি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করেছেন। আবেদন সূত্রে জানা গেছে মনাকষা বাজার সংলগ্ন ৩৯নং খতিয়ানের ২৩১৪ ও ২৩১৫ নং দাগের ৩৮শতক জমির মালিক মরহুম আফসার আলি বিশ্বাসের ৪ ছেলে মরহুম আফজার হোসেন, মরহুম দেলওয়ার হোসেন, মরহুম বশির উদ্দিন ও মইনুদ্দিন।

এ জমির বাইরে প্রায় ৮শতক বাজারের খাস জমির তার বাড়ি তৈরী করেছে এবং বর্তমানে সাতরশিয়া গ্রামের বদিউর রহামরেন ছেলে মাইনুল ইসলামকে দিয়ে পাকা দোকান ঘর নির্মান করাইতেছে। শুধু তাই নয় খাস জমির উপর থাকা দুটি গাজ কেটে নিয়েছে। এ ব্যাপারে পাকা দোকানঘর নির্মান কারী মাইনুল ইসলাম জানান, আমি উপরোক্ত অংশীদারদের নিকট হতে ৮শতক জমি ক্রয় করে দোকনঘর নির্মান করছি এবং আমার জমির উপর থাকা গাছ কেটেছে।

তিনি আরো বলেন যেহেতু আমার নিজের জমি তাই ইউপি চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন ভূমি অফিসকে অবহিত করিনি। তবে মাপের মাধ্যমে খাস জমি প্রমানিত হলে খাস জমি ছেড়ে দিবো। তবে পূর্বের জমির মালিকগণ যেখান থেকে আমাকে দখল দিয়েছে সেখান থেকে আমি বহুদিন থেকে ভোগ দখল করে আসছি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক ব্যক্তি বলেন, শুধু এ ৮শতকই নয় মনাকষা বাজারে আরো অনেকেই সরকারের খাস জমি দখল করে পাকা দোকান ঘর সহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মান করেছে। এমননি সরকারী খাস জমি অবৈধভাবে দখল করে অন্যের কাছে মাসিক ও বাৎসারিক চুক্তিতে ভাড়া দিয়ে অর্থ উপার্জন করছে।

এব্যাপারে উপজেলা সহাকারী কমিশনার (ভূমি) বরমান হোসেন বলেন, আবেদনের অনুলিপি কপি পেয়েছি। মনাকষা বাজারের খুঁটিনাটি তদন্ত পূর্বক তালিকাভুক্তির কাজ চলছে এবং অবৈধভাবে দখলদারদের নিকট সমস্ত খাস জমি উদ্ধার করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..




Copyright © All rights reserved © 2019 Kansatnews24.com
Theme Developed BY Sobuj Ali