মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:৩৭ অপরাহ্ন

কোরবানির মহিষের তাণ্ডবে আহত ১২, পুলিশের গুলি

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৯
  • ১৩৮ বার পঠিত

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল কোরবানীর একটি মহিষ জবাইয়ের প্রস্তুতির সময় লাফিয়ে উঠে হামলে পড়লে মানুষের উপর। মহিষটির তাণ্ডবে আহত হয়েছে ১২ জন। পরে মহিষকে নিয়ন্ত্রণে আনতে এক রাউন্ড গুলি ছুড়েছে পুলিশ। তবে পুলিশের ছোড়া গুলি মহিষের গায়ে লাগেনি।

সোমবার ঈদের নামাজ শেষে কোরবানী দেওয়ার সময় উপজেলার যুগিহাটি গ্রামে আরিফুল সরকারের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঘাটাইল ও ভূঞাপুর উপজেলার সীমান্তবর্থী কয়েকটি গ্রামের মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

পুলিশ ও গ্রামবাসীরা জানান, উপজেলার যুগিহাটি গ্রামের আরিফুল ইসলাম কয়েক মিলে একটি মহিষ কোরবানীর জন্য ক্রয় করেন। গতকাল সোমবার সকালে ঈদের নামাজ শেষে মহিষটি কোরবানী দেয়ার প্রস্তুত করছিলেন। এ সময় মহিষটি লাফিয়ে উঠে আরিফ ও তার ভগ্নিপতিসহ ৫ জনকে আহত করে। পরে মহিষটি রাস্তায় দৌঁড়াতে থাকে। মহিষটি গুতোয় রাস্তায়ও বেশ কয়েজনকে আহত করে। পরে মহিষটি দৌড়ে পাশ্ববর্তী ভূঞাপুর উপজেলার কাগমারি পাড়া এলাকায় বিলের মধ্যে চলে যায়। এ সময় আরো ৭ জন আহত হয় বলে এলাকাবাসী জানায়। আহতদের কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

দুপুর থেকে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা যৌথভাবে মহিষটি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা কওে ব্যর্থ হয়। সন্ধ্যার পর থেকে মহিষটি কাগমারি পাড়া বিলে অবস্থান করছিল।

এ ব্যাপারে ভুঞাপুর থানার এসআই টিটু চৌধুরী বলেন, ভুঞাপুর উপজেলার ইউএনও নির্দেশে ক্ষিপ্ত ওই মহিষটিকে লক্ষ্য করে এক রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়। এতে মহিষটি সরে গেলে গুলি লাগেনি। ততক্ষণে মহিষটিকে দেখতে আশপাশের হাজারোও উৎসুক মানুষ চলে আসে। এতে পুনরায় গুলি করা সম্ভব হয়নি মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করে। বারবার উৎসুক জনতাকে সেখান থেকে সরতে মাইকিং করা হলেও তারা কোন কর্ণপাত করছে না। সোমবার রাত ৮টার পার হলেও মহিষটিকে নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

ads

ads

Copyright © All rights reserved © 2019 Kansatnews24.com
Theme Developed BY Sobuj Ali