বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই ২০২০, ০৮:০৬ অপরাহ্ন

শিবগঞ্জে দূর্বৃত্তের হাতে উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রফিকুল আহত

মোহা. সফিকুল ইসলাম, শিবগঞ্জ
  • আপডেট টাইম শনিবার, ৩০ মে, ২০২০
  • ৫৬ বার পঠিত

পূর্ব শত্রুতার জের ও সরকার দলীয় কোন্দলের কারণে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা শাখা যুবলীগ সভাপতি প্রভাষক রফিকুল ইসলামকে পিটিয়ে জখম করেছে দূর্বৃত্তরা। আহত অবস্থায় তিনি শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার রাত পৌনে ১০ টার দিকে মনাকষা থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে দূর্লভপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও রফিক মাস্টারের বাড়ির সামেন একদল দূর্বৃত্তরা তার পথরোধ করে উপর্যপরি মারপিট করে। এসময় স্থানীয়রা ছুটে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ স্বস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত যুবলীগ সভাপতি প্রভাষক রফিকুল ইসলাম জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ও রাজনৈতিক কোন্দলের কারণে কিছুদিন আগে ডাকাতি মামলায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়া নিজ দলের প্রতিপক্ষের ভাড়াটিয়া বাহিনী দূর্লভপুর গ্রামের রোজবুল হকের ছেলে রায়হান আলী, আলমের ছেলে মিলন, মোস্তাফার ছেলে রুবেল ও বাতুর ছেলে নবীসহ আরো কয়েকজন আমার পথরোধ করে মারপিট করে এবং আমার মোবাইল সেট ও ৩৫ হাজার টাকা সহ ম্যানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়।

তিনি আরো বলেন, আমি নিজে বাদী হয়ে ওই চারজনের নামসহ অজ্ঞাত আরো ৬/৭জনকে আসামী করে মামলার করার প্রস্তুতি নিয়েছি। মামলার কাজ শেষ হলেই আমি উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হবো।

তিনি আরো বলেন, শনিবার সকালে জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমানুল্লাহ ইসলাম বাবু, সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক লেলিন প্রামানিক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মারুফ আহমেদ সাউন।

এছাড়া আহত যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলামের সাথে দেখা করে খোঁজ খবর নিয়েছেন শিবগঞ্জ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তোহিদুল আলম টিয়া, উপজেলা বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের সভাপতি জিয়াউল হক জিয়া ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এব্যাপারে উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক তোসিকুল ইসলাম টিসু কোন মন্তব্য করতে রাজী হননি। শিবগঞ্জ উপজেলা শাখা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু আহমেদ নজমুল কবির মুক্তা বলেন, একজন যুবলীগ সভাপতিতে দূর্বৃত্তরা অন্যায়ভাবে পিটিয়েছে। আইন অনুযায়ী বিচার চাই।
স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা: সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল বলেন, সরকার দলীয় যুবলীগ নেতাকে দূবৃত্তরা রাতের আঁধারে পিটিয়েছে। অবশ্যই এর বিচার হতে হবে।আমি আইন অনুযায়ী বিচার চাই এবং দ্রুত দূবৃৃত্তদের আটক করে আইনের আওতায় আনার জন্য পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আলম শাহ্ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

 

Copyright © All rights reserved © 2019 Kansatnews24.com
Theme Developed BY Sobuj Ali
error: Content is protected !!